কিওয়ার্ড রিসার্চ কি এবং কিওয়ার্ড রিসার্চ কিভাবে করতে হয়

কিওয়ার্ড রিসার্চ

একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগসাইটের নিশ সিলেক্ট করতে হলে কিওয়ার্ড রিসার্চ করতে হয়। প্রশ্ন হচ্ছে নিশ কি ? নিশ হচ্ছে কোন একটি বিষয়। আপনি কোন বিষয়ে ব্লগসাইট তৈরি করবেন তা সিলেকশন করতে হলে আপনাকে নিশ নির্বাচন করতে হবে। আর নিশ নির্বাচন করতে হলে কিওয়ার্ড রিসার্চ করতে হবে। তবেই আপনি পারফেক্ট নিশ বা বিষয় খোজে পাবেন। যা সার্চ ইন্জিনের জন্য র‌্যান্ক পেতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। আপনাকে জানতে হবে কোন কিওয়ার্ডের সার্চ ভলিয়ম কত, কম্পিটিশন কি, কোন কান্ট্রি থেকে কত সার্চ করা হয় ইত্যাদি জানতে হবে। তবেই আপনি একটি পারফেক্ট কিওয়ার্ড নির্বাচন করতে পারবেন। তাই আজকে আমাদের আলোচ্য বিষয় হচ্ছে কিওয়ার্ড রিসার্চ কি এবং কিওয়ার্ড রিসার্চ কিভাবে করতে হয়।

কিওয়ার্ড রিসার্চ কি :

কিওয়ার্ড রিসার্চ সম্পর্কে জানতে হলে আগে আপনাকে জানতে হবে কিওয়ার্ড কি ? কিওয়ার্ড হচ্ছে অনলাইনে আমরা যা লিখে সার্চ করি তাহাই হচ্ছে কিওয়ার্ড। ধরুন, আপনি গুগুল সার্চ ইন্জিনে ‘ আপেলের ছবি’ লিখে সার্চ করলেন। তখন অসংখ্য আপেলের ছবি দেখতে পাবেন। বা ”শাবনুরের ছবি’ লিখে সার্চ করলেন। তখন শাবনুরের ছবি দেখতে পাবেন। এখানে ‘আপেলের ছবি’ এবং “শাবনুরের ছবি’ এক একটি কিওয়ার্ড। কিওয়ার্ড এক শব্দের হতে পারে বা একাধিক শব্দেরও হতে পারে। তবে ইফেক্টিভ কোন শব্দ বা বাক্য হতে হবে। আর কিওয়ার্ড রিসার্চ হচ্ছে কোন কিওয়ার্ড গবেষনা বা অনুসন্ধান করে সঠিক কিওয়ার্ড খোজে বের করাই হচ্ছে কিওয়ার্ড রিসার্চ।

কিওয়ার্ড কত প্রকার :

কিওয়ার্ড দুই প্রকারের হয়ে থাকে। এক. শর্টটেল কিওয়ার্ড। দুই, লংটেল কিওয়ার্ড। শর্টটেল কিওয়ার্ড হচ্ছে যে কোন একটি শব্দের হতে হবে। আর লংটেল কিওয়ার্ড হচ্ছে একাধিক শব্দের হতে পারে। যেমন: শর্টটেল কিওয়ার্ড গুলো এক শব্দ বিশিষ্ট হলো ”হেলথ’, ট্রাভেল, এডুকেশন, গেম ইত্যাদি এই ধরনের হয়ে থাকে। আর লংটেল কিওয়ার্ড গুলো হলো ”হেলথের উপকারিতা এবং অপকারিতা”, আন্তর্জাতিক ট্রাভেল, ’এডুকেশন বিষয় রিলেটড’, ’ওয়াল্ডকাপ গেম’ ইত্যাদি দুই বা ততোধিক শব্দের হতে পারে। মোট কথা এক শব্দের হলে শর্টটেল কিওয়ার্ড। দুই বা ততোধিক শব্দের হলে লংটেল কিওয়ার্ড।

কিওয়ার্ড রিসার্চ কিভাবে করতে হয় :

কিওয়ার্ড রিসার্চ কি ? কিওয়ার্ড রিসার্চ হচ্ছে গবেষনা বা অনুষন্ধান করে কোন কিওয়ার্ড বা নিশ সিলেক্ট করাই হচ্ছে কিওয়ার্ড রিসার্চ করা। সার্চ ইন্জিনের জন্য কিওয়ার্ড রিসার্চ করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন। কারন কোন কিওয়ার্ড গুগুল ফাস্ট পেজে আনতে হলে কিওয়ার্ড রিসার্চ অত্যন্ত জরুরী। কিওয়ার্ড রিসার্চের বিভিন্ন টুলস রয়েছে। সে গুলোর মাধ্যমে কিওয়ার্ড রিসার্চ করতে হয়। টুলস গুলো হচ্ছে :

1. Keyword Planner

2. Moz keyword Explorer

3. Keywords Everywhere

4. Google Trends

5. Answer the Public

6. Ahrefs.com

7. Keyword Snatcher

8. SEMrush keyword research tool.

9. Ubersuggest keyword research tool

10. Soovle keyword research tool.

উপরোক্ত টুলস গুলোর মাধ্যমে কিওয়ার্ড রিসার্চ করা যায়। এর মধ্যে কিছু টুলস রয়েছে ফ্রি আবার কিছু টুলস রয়েছে পেইড। প্রথমত আমরা ফ্রি টুলস ব্যবহার করে কিওয়ার্ড রিসার্চ করবো। পরবর্তীতে পেইড টুলস অর্থা’ৎ টাকা দিয়ে ক্রয় করে ব্যবহার করতে পারবো। এখানে ফ্রি টুলস কিওয়ার্ড প্লানারের ব্যবহার সম্পর্কে তুলে ধরার চেষ্ট করবো। কিওয়ার্ড প্লানারের মাধ্যমে সম্পূর্ন ফ্রিতে কিওয়ার্ড রিসার্চ করতে পারবেন।

Keyword Planner এর মাধ্যমে কিওয়ার্ড রিসার্চ :

কিওয়ার্ড প্লানার গুগুলের একটি ফ্রি টুলস। কিওয়ার্ড প্লানার ব্যবহার করতে হলে একটি জিমেল দিয়ে সাইন আপ করতে হবে। তারপর কোন ব্রাউজারে ট্যাব ওপেন করে keyword planner লিখে সার্চ করবেন। প্রথমে যে লিংক পাবেন তাতে ক্লিক করবেন। তখন নিচের মতো একটি ইন্টারফেস দেখতে পাবেন। অথবা রেজিষ্ট্রেশন করার পর এই লিংকে ক্লিক করুন।

https://ads.google.com/aw/keywordplanner/home?ocid=493163746&euid=345272771&__u=9633737579&uscid=493163746&__c=3890550354&authuser=0&subid=bd-en-ha-awa-bk-a-s00%21o3~Cj0KCQiAx6ugBhCcARIsAGNmMbhoJANRp_9VNb5kCos7GRndNNz1Yr6FBHA8IVUTG2cxyppsJRB-QHUaAj4xEALw_wcB~139027762476~aud-1393064494230%3Akwd-631174085270~17792962496~611031616926

তাহলে নিচের মতো একটি ইন্টারফেস দেখতে পাবেন।

Keyword Research.1 :

Keyword research.1

এই ইন্টারফেসে লাল আয়াতাকার ঘরে Discover keywords এ ক্লিক করুন। তাহলে নিচের মতো একটি ইন্টারফেস দেখতে পাবেন।

Keyword Research.2 :

কিওয়ার্ড রিসার্চ

এই ইন্টারফেসে লাল তীর চিহ্ন দিয়ে দেখানো স্থানে আপনার পছন্দমতো কিওয়ার্ড লিখবেন এবং নিচে লাল আয়াতাকার ঘরে ক্লিক করে আপনার পছন্দমতো দেশ সেট করে দিবেন। তারপর Get results ঘরে ক্লিক করুন। তখন একটি চাট দেখতে পাবেন। এখানে আপনার কিওয়ার্ডের মানথলি সার্চ ভলিয়ম কত, কম্পিটিশন কি ইত্যাদি দেখতে পাবেন। এখান থেকে যে কিওয়ার্ডের সার্চ ভলিয়ম বেশি এবং কম্পিটিশন লো এমন ধরনের কিওয়ার্ড পছন্দ করুন। তাহলে সে কিওয়ার্ড সহজে গুগুলে র‌্যান্ক করতে পারবেন। এছাড়া এখান থেকে রিলেটেড কিওয়ার্ড বেছে নিতে পারেন। রেলেটেড কিওয়ার্ড দিয়ে কন্টেন্ট বা আর্টিকেল লিখতে পারেন। তাহলে সে আর্টিকেল সহজে র‌্যান্ক করার সম্ভাবনা থাকে। এভাবে কিওয়ার্ড প্লানার দিয়ে আপনার পছন্দ মতো কিওয়ার্ড বেছে নিতে পারেন।

KGR কিওয়ার্ড কি :

KGR Keyword হচ্ছে keyword Golden Ratio . KGR কিওয়ার্ড নিয়ে কোন সাইট তৈরি করতে পারলে গুগুলে খুব সহজে র‌্যান্ক করতে পারেন। তাতে কম্পিটিশন কম থাকে। আমরা সাধারন ভাবে কিওয়ার্ড রিসার্চ করে কোন কিওয়ার্ডকে র‌্যান্ক করাতে পারি। তবে কে জি আর কিওয়ার্ড দিয়ে আরো সহজে র‌্যান্ক করাতে পারি। কোন বায়ার বা ক্লিয়েন্ট সাইট তৈরি করতে দিলে আপনাকে কে জি আর কিওয়ার্ড দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে বলবে। তাই আপনাকে কে জি আর কিওয়ার্ড খোজে বের করতে হবে। এখন প্রশ্ন হচ্ছে কে জি আর কিওয়ার্ড কিভাবে খোজে বের করবো। কে জি আর কিওয়ার্ড খোজে বের করার নিয়ম হলো। কোন ব্রাউজারে আপনি যে কিওয়ার্ড পছন্দ করছেন সে কিওয়ার্ডের সামনে ‍allintitle: লিখে একটা স্পেস দিয়ে আপনার পছন্দমতো কিওয়ার্ড লিখে সার্চ দিবেন। তাহলে নিচে সার্চ ভলিয়ম দেখতে পাবেন। আবার যে কোন ফ্রি টুলস ব্যবহার করে সে কিওয়ার্ডের সার্চ ভলিয়ম বের করে নিবেন। যেমন: কিওয়ার্ড প্লানার ব্যবহার করে কিওয়ার্ডটির সার্চ ভলিয়ম বের করবেন। এই দুই ধরনে সার্চ ভলিয়ম দিয়ে একে অপরকে ভাগ করতে হবে। ভাগ করে যদি 0.25 এর নিচে দেখতে পান তাহলে সে কিওয়ার্ড হচ্ছে কে জি আর কিওয়ার্ড। এই ধরনে কিওয়ার্ড নিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করলে সহজে গুগুলে র‌্যান্ক করতে পারবেন। সূত্র হচ্ছে : allintitle: volume / Search volume. অর্থাৎ অল ইন টাইটেল সার্চ ভলিয়ম দিয়ে সাধারন সার্চ ভলিয়মকে ভাগ করে যদি 0.25 এর নিচে ভলিয়ম পাওয়া যায়, তাহলে সে কিওয়ার্ড হচ্ছে কে জি আর কিওয়ার্ড। মনে রাখবেন কে জি আর কিওয়ার্ড দিয়ে খুব সহজে গুগুল র‌্যান্কে আসা যায়। সাধারনত: কে জি আর কিওয়ার্ড লংটেল কিওয়ার্ড হয়ে থাকে।

আরো পড়ুন :

ওয়েবসাইট গুগলে ইনডেক্স করার নিয়ম

শেষ কথা :

কোন ওয়েবসাইটকে বা ব্লগসাইটকে গুগলে র‌্যান্ক করাতে চাইলে কিওয়ার্ড রিসার্চ করা আবশ্যক। কিওয়ার্ড রিসার্চ ছাড়া কিওয়ার্ডের সার্চ ভলিয়ম জানা যায় না। সে কিওয়ার্ড Low keyword না High keyword বোঝা যায় না। হাই কিওয়ার্ড নিয়ে কম্পিটিশনে জিতা যায় না। সব সময় সার্চ ভলিয়ম বেশি এবং কম্পিটিশন লো এমন কিওয়ার্ড নিয়ে সাইট তৈরি করার চেষ্টা করবেন। কোন বিষয়ে কন্টেন্ট লিখতে গেলেও এমন ধরনে কিওয়ার্ড নির্বাচন করা উচিত। আর ক্লিয়ান্টের বা বায়ারের সাইট তৈর করতে হলে কে জি আর কিওয়ার্ড নির্বাচন করার চেষ্টা করবেন। তাহলে সহজে এবং দ্রুততম সময়ের মধ্যে তার ওয়েসবাইট র‌্যান্ক করে দিতে পারবেন। মনে রাখবেন ক্লাইন্টকে খুশি করতে পারলে বেশি বেশি কাজ পাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। আর একটি পরামর্শ কোন ওয়েসবাইটকে গুগুলের ফাস্ট পেজে আনতে হলে প্রথমে কিওয়ার্ড রিসার্চ প্রয়োজন। তারপর অনপেজ, অফপেজ এবং টেকনিক্যাল এসইও সঠিক ভাবে করতে হবে। তাহলে যে কোন ওয়েবসাইটকে সবার উপরে আনতে পারবেন।

Related posts

3 Thoughts to “কিওয়ার্ড রিসার্চ কি এবং কিওয়ার্ড রিসার্চ কিভাবে করতে হয়”

  1. It’s very simple to find out any topic on net as compared to books, as I found this piece of writing at this web page.

Leave a Comment