কিংবদন্তি ব্রাজিলিয়ান ফুটবলার তারকা ’পেলের’ (Pele) মৃত্যু

Pele

কিংবদন্তি ফুটবল তারকা পেলেকে (Pele) কাতার বিশ্বকাপ চলাকালে তার প্রতি এভাবেই সমর্থন এবং সম্মান জানিয়েছিলেন ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমারসহ অন্য খেলোয়াড়রা । মাত্র ৮ ঘন্টা আগে ব্রাজিলের কিংবদন্তী ফুটবলার এডসন আরান্তেস দো নাসিমেন্তো, সারা বিশ্বে যিনি পেলে নামে বিখ্যাত, ৮২ বছর বয়সে মারা গেলেন । বিতর্ক হলেও অনেকে তাকেই সর্বকালের সেরা ফুটবল খেলোয়াড় মনে করেন ।

Pele 1. pele 1

মাত্র সতের বছর বয়সে তারকাখ্যাতি পেয়েছিলেন পেলে সুইডেনের ১৯৫৮ সালের বিশ্বকাপ জয়ে ব্রাজিল দলের হয়ে দারুণ ভূমিকার জন্য।

তার ২১ বছরের ফুটবল ক্যারিয়ারে ১৩৬৩ ম্যাচ খেলে রেকর্ড ১২৮১ গোল করেন পেলে। এর মধ্যে ব্রাজিলের হয়ে ৯২ ম্যাচে ৭৭টি আন্তর্জাতিক গোলও রয়েছে তার।

মূলত তিন তিনবার বিশ্বকাপ জয় করার জন্য পেলে বিখ্যাত হয়েছেন। তিনিই একমাত্র খেলোয়াড়- নারী কিম্বা পুরুষ- যিনি এতবার বিশ্বকাপ জয় করেছেন।

১৯৫৮, ১৯৬২ ও ১৯৭০ সালে বিশ্বকাপ জয় করেছেন এবং ২০০০ সালে ফিফা তাকে শতাব্দী সেরা খেলোয়াড় ঘোষণা করে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে তিনি কিডনি ও প্রস্টেট সংক্রান্ত জটিলতায় ভুগছিলেন।

পেলের সুস্থতা কামনা করেছিলো দর্শকরা

পেলের সুস্থতা কামনা করেছিলো দর্শকরা কাতার বিশ্বকাপের সময় ব্রাজিল দক্ষিন কোরিয়ার মধ্যে খেলার সময়।

‘তোমাকে সীমাহীন ভালোবাসি। শান্তিতে ঘুমাও’

গত বছরের সেপ্টেম্বরে অপারেশন করে তার কোলন থেকে টিউমার অপসারণ করা হয় সাও পাওলোর আলবার্ট আইনস্টাইন হসপিটালে ।

পরে গত মাসে তাকে আবারো হাসপাতালে ভর্তি করতে হয় ।

তার কন্যা কেলি নাসিমেন্তো হাসপাতাল থেকে তার পিতার স্বাস্থ্যের সর্বশেষ খবর ভক্তদের জানাচ্ছিলেন প্রতিনিয়ত সামাজিক মাধ্যমে ।

বৃহস্পতিবার হাসপাতাল থেকেই তিনি লিখেছেন, “আমাদের সব কিছুর জন্য তোমাকে ধন্যবাদ । আমরা তোমাকে সীমাহীন ভালোবাসি । শান্তিতে ঘুমাও”।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষও পেলের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে, “কোলন ক্যান্সারসহ আগের সমস্যাগুলোর ফলস্বরূপ অনেকগুলো প্রত্যঙ্গ অকার্যকর হয়ে পড়া’কেই কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছে ।
পেলে
পেলেকেই অনেকে সর্বকালের সেরা ফুটবলার মনে করেন ।

‘ভালোবাসা, ভালোবাসা এবং চিরন্তন ভালোবাসা’

পেলের টুইটার অ্যাকাউন্টে বলা হয়েছে, “কিং পেলের যাত্রাপথে ছিলো প্রেরণা আর ভালোবাসাই, যিনি আজ শান্তিতে বিদায় নিলেন । ভালোবাসা, ভালোবাসা এবং চিরন্তন ভালোবাসা”।

ব্রাজিলের ফুটবল ফেডারেশন বলেছেন সর্বকালের সেরা খেলোয়াড়ের চেয়েও বেশি কিছু ছিলেন পেলে ।

“বিজয়ী ব্রাজিলের সবচেয়ে বড় উদাহরণ হলে আমাদের ফুটবলের রাজা । যিনি কখনো কঠিন সময় মোকাবেলা করতে ভয় পাননি । তিনি তার পিতাকে একটি বিশ্বকাপ এনে দেয়ার অঙ্গীকার করেছিলেন । কিন্তু আমাদের উপহার দিয়েছেন তিনটি”।

“রাজা আমাদের নতুন ব্রাজিল উপহার দিয়েছিলেন এবং আমরা তার প্রতি কৃতজ্ঞ। ধন্যবাদ, পেলে”।

পেলের সাবেক ক্লাব সান্তোষ তার শেষকৃত্যানুষ্ঠানের বিস্তারিত ঘোষণা করেছে ।

সোমবার সকালে তার মৃতদেহ হাসপাতাল থেকে ক্লাবের এস্তাদিও উরবানো কালদেইরা’য় আনা হবে যেখানে মাঠের মাঝখানে কফিন রাখা হবে সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা জানানোর জন্য।

মঙ্গলবার শোভাযাত্রা সহকারে পেলেকে (Pele) পারিবারিক কবরস্থানে নিয়ে যাওয়া হবে এবং কবরস্থ করা হবে ।

সংগৃহিত : বিবিসি নিউজ।

Leave a Comment