ফেসবুক রিলস ভিডিও (Reels video) থেকে ইনকাম গাইডলাইন

Reels Video

ভিউয়ারস ফেসবুক সোসাল মিডিয়ার মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় মাধ্যম।ফেসবুকে সর্ব শ্রেনির মানুষ বিচরণ করে থাকে। ফেসবুক দেখে না এমন মানুষ খুজে পাওয়া দুস্কর। ফেসবুকে আবাল বৃদ্ধ বনিতা সর্ব শ্রেনির মানুষ বিচরন করে থাকে। ফেসবুকের মাধ্যমে চ্যাট করে একে অপরের সাথে বন্ধুত্ব গড়ে তোলা সম্ভব। ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার গুরুত্বপূর্ন তথ্য শেয়ার করা সম্ভব। এককথায় ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার যে কোন তথ্য আপনার বন্ধু-বান্ধব, আত্মীয় স্বজনের সাথে শেয়ার করতে পারবেন।বন্ধুরা ফেসবুকে শুধু তথ্য আদান-প্রদান আর শেয়ার করেই শেষ নয় এখান থেকে ইনকাম করাও সম্ভব। ফেসবুকে বিভিন্ন ভাবে ইনকাম করা যায়।আপনি যদি ফেসবুক থেকে ইনকাম করতে চান তাহলে এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য। আর্টিকেলটি ভালো করে পড়ুন সকল ইনফরমেশন গুলো বুঝার চেষ্টা করুন। এই পদ্ধতি গুলো অনুসরন করলে অবশ্যই আপনি ফেসবুক থেকে ইনকাম করতে পারবেন। আজকে আমাদের আলোচ্য বিষয় হচ্ছে ফেসবুক রিলস ভিডিও(Reels video) থেকে ইনকাম গাইডলাইন।

ফেসবুক রিলস ভিডিও (Reels video) ইনকাম টিপস বা গাইডলাইন :

ফেসবক থেকে বিভিন্ন ভাবে ইনকাম করা যায়। তার মধ্যে বর্তমানে ভাইরাল টপিকস হচ্ছে ফেসবুক রিলস ভিডিও আপলোড করে ইকাম।এই পদ্ধতি গুলো ধারাবাহিক ভাবে নিচে তোলে ধরা হলো। এই পদ্ধতি গুলো থেকে যদি আপনি একটি পদ্ধতিও সঠিক ভাবে আয়ত্ব করতে পারেন এবং প্রসেস গুলো সঠিক ভাবে ইউটিলাইজ করতে পারেন তাহলে অবশ্যই আপনি ফেসবুক থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

ফেসবুক রিলস কি :

প্রশ্ন হচ্চে ফেসবুক রিলস কি ? ফেসবুক রিলস হচ্ছে শর্ট এবং লং ভিডিওয়ের সমন্বিত প্রসেস। ইউটিউবে যেমন শর্ট ভিডিও তৈরি করে ইনকাম করা যায় তেমনি ফেসবুকে রিলস ভিডিও তৈরি করে ইনকাম করা যায়।রিলস ভিডিও হচ্ছে 5 সেকেন্ড থেকে শুরু করে 90 সেকেন্ডের মধ্যে তৈরিকৃত ভিডিও।অর্থাৎ 90 সেকেন্ডে নীচে যে সব ভিডিও তৈরি করা হয়ে থাকে তাকে রিলস বা শর্ট ভিডিও বলা হয়ে থাকে। ফেসবুক রিলস ভিডিও আবার দুই ধরনের ক্যাটগরির হয়ে থাকে। এক, শর্ট ভিডিও, দুই লং ভিডিও। শর্ট ভিডিও গুলো দেড় মিনিটের মধ্যে অর্থৎ 90 সেকেন্ডের মধ্যে হতে হবে। আর লং ভিডিও গুলো তিন মিনিটের উপরে হতে হবে। ফেসবুক রিলস থেকে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ইনকাম করা যায়। যেমন : এডস অন রিলস, ইনিস্ট্রিম এডস, স্টার, বোনাস, সাবস্ক্রিপশন ইত্যাদি।

এডস অন রিলস ভিডিও কি :

ফেসবুকে বর্তমানে এডস অন রিলস ভিডিও বেশ জনপ্রিয়। এখান থেকে হাজার হাজার লোক সহজে ইনকাম করছে। এই ধরনের ভিডিও গুলো তৈরি করা খুব সহজ। যা আপনার হাতে থাকা মোবাইল দিয়ে সহজে ‍সুট করে ফেসবুকে আপলোড দিয়ে ইনকাম করতে পারেন। এডস অন রিলস ভিডিও হচ্ছে , 5 থেকে 90 সেকেন্ডের যে ভিডিও গুলো হয়ে থাকে তাকে এডস অন রিলস ভিডিও বলা হয়ে থাকে। ফেসবুকে এডস অন রিলস থেকে ইনকাম করার তেমন কোন শর্ত নেই।আপনি মোটামুটি 20 থেকে 25 টি ভিডিও আপলোড করলে ফেসবুক আপনাকে ইনভাইড করবে। তখন মনিটাইজেশন করে ইনকাম করতে পারবেন। এখানে শর্ত হচ্ছে ফেসবুক যখন আপনাকে ইনভাইড করবে তখন থেকে আপনি ইনকাম করতে পারবেন। তবে আপনার ভিডিওতে পর্যাপ্ত পরিমান ভিজিটর থাকতে হবে।

ইনিষ্ট্রিম এডস ভিডিও কি :

ইনিষ্ট্রিম এডস ভিডিও হচ্ছে যে ভিডিও গুলো ৩ মিনিটের উপরে হয়ে থাকে, তাকে ইনিস্ট্রিম এডস ভিডিও বলা হয়ে থাকে। ইনিষ্ট্রিম এডস ভিডিওকে ফেসবুকে লং ভিডিও বলা হয়ে থাকে। এই ক্যাটাগরির ভিডিও থেকে ইনকাম করতে হলে আপনানে ৫টি শর্ত মেনে চলতে হবে। তবেই এখান থেকে ইনকাম করতে পারবেন। শর্ত গুলো হচ্ছে-

1. আপনাকে বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে।

2. আপনার বয়স ১৮ বছর হতে হবে।

3. আপনার ৫০০০ ফলোয়ার থাকতে হবে।

4. ৬০,০০০ মিনিট ওয়াচ টাইম থাকতে হবে।

5. কন্টেন্ট মনিটাইজেশন পলিসি ইস্যু থাকা যাবে না।

এছাড়া স্টার, বোনাস এবং সাবস্ক্রিপশন থেকে ইনকাম করতে পারবেন। স্টার হচ্ছে যখন আপনার প্রোফাইলে বা পেজে ৫০০ ফলোয়ার হবে, তখন ফেসবুক আপনাকে স্টার দিবে। এই স্টারে যদি কেউ আপনার ভিডিও দেখে ভালো লাগে তখন আপনাকে গিফট হিসেবে ১ সেন্ট, ২ সেন্ট বা ৫ সেন্ট পাঠাতে পারে। এভাবে ষ্টার থেকে ইনকাম হয়ে থাকে। বোনাস হচ্ছে ফেসবুক খুশি হয়ে যদি কিছু পাঠায় তাকে বোনাস বলা হয়ে থাকে। সাবস্ক্রিপশন হচ্ছে সাবস্ক্রিপের বিনিময়ে ফেসবুক থেকে যে আয় আসে। আসল কথা হচ্ছে ফেসবুক রিলস ভিডিও থেকে ইনকাম করতে হলে আপনাকে এডস অন রিলস এবং ইনিষ্ট্রিম এডস থেকে ইনকাম করতে হবে। এই দুই পদ্ধতি থেকে ভালো পরিমান ইনকাম করা যায়। কেউ কেউ মাসে ৫০০০০ থেকে ১০০০০০ টাকা পরিমান ইনকাম করতেছে।

কিভাবে ফেসবুক থেকে ইনকাম করা যায়।

পরিশেষে কথা হচ্ছে, বর্তমানে ফেসবুক ভিডিও ক্রেয়িটরদের হাজার হাজার ডলার দিয়ে থাকে। যদি আপনি ফেসবুকে গাইডলাইন মেনে ভিডিও আপলোড করতে পারেন তাহলে হাজার হাজার ডলার ইনকাম করতে পারবেন। ফেসবুক কমিউনিটি গাইডলাইন রয়েছে। এই গাইডলাইন মেনে ভিডিও আপলোড করলে আপনি ফেসবুক থেকে ইনকাম করতে পারবেন। তাদের কমিউনিটি গাইডলাইনে তেমন জটিল কোন শর্ত নেই। শর্ত গুলো হচ্ছে উপরে উল্লিখিত ৫টি। অর্থৎ আপনাকে বাংলাদেশী নাগরিক হতে হবে, আপনার বয়স ১৮ বছর হতে হবে, ৫ হাজার ফলোয়ার থাকতে হবে, ৬০ হাজার মিনিট ওয়াচটাইম থাকতে হবে। আর কন্টেন্ট মনিটাইজেশন পলিসি ইস্যু থাকা যাবে না। এই শর্ত গুলো মেনে ভিডিও আপলোড করেন, আপনি অবশ্যই ফেসবুক রিলস ভিডিও(Reels video) থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

Related posts

Leave a Comment